গল্পঘর

বাংলা গল্পের ভান্ডারে বৈচিত্রের শেষ নেই। দিকপাল সব লেখকেরা সেখানে অকাতরে দান করে গেছেন হাজারো মণি-মুক্তো। সমকালীন সময়ে এক একটি গল্প, বড় গল্প বা উপন্যাস যেমন আলোচনার ঝড় তুলেছে তেমনই কখনও কখনও কালের নিরিখে তা হয়ে উঠেছে অবশ্যপাঠ্য। এরমধ্যে বিখ্যাত সাহিত্যিক বা ঔপন্যাসিকের যেমন বিখ্যাত সৃষ্টি আছে তেমনই রয়েছে অখ্যাত লেখকের বিখ্যাত গল্পটিও। সময় যত এগোচ্ছে ততই নিজেকে নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ছে মানুষ। লাইব্রেরিতে গিয়ে দু-মলাটের মধ্যে থাকা সেসব মণি মুক্তোর স্বাদ গ্রহনের সময় কোথায়? ইচ্ছে থাকলেও বই বাজারে গিয়ে বা প্রকাশকের ঘরে গিয়েও অনেক পেয়ে উঠতে পারেন না সেই কাক্ষিত গল্পটিকে। শুধুমাত্র পাঠকের কথা ভেবে, ভাল গল্প পড়ার আনন্দে আমরা গল্প ঘরে তুলে আনছি সেই রকমই কিছু গল্প। ফেলে আসা সময়ে লেখা কোনও ভাল গল্পের খোঁজ পেলে তার প্রকাশ সংক্রান্ত তথ্য উল্লেখ করে ই-মেলে তা পাঠিয়েও দিতে পারেন আমাদের। আমরা তা রেখে দেব গল্পঘরে। গল্প ঘর হয়ে উঠুক ভাল গল্পের সিন্দুক।


  • ডোমের চিতা

      রমেশ চন্দ্র সেন রমেশচন্দ্র সেনের জন্ম ১৮৯৪ সালে পূর্ববঙ্গের ফরিদপুর জেলার পিঞ্জরী গ্রামে। পেশা হিসেবে পূর্বপুরুষের আয়ুর্বেদ চিকিৎসাকেই বেছে নিয়েছিলেন। প্রথম লেখা উপন্যাস ‘শতাব্দী’ প্রসঙ্গে লেখক জানিয়েছেন ‘উপন্যাসখানির  পান্ডুলিপি নিয়ে প্রথম প্রথম প্রকাশকের দরবারে উপস্থিত হয়েছিলাম। কেউ পড়ে আবার কেউ না পড়েই তা ফিরিয়ে দিয়েছে। শেষ পর্যন্ত বহুদিন বই প্রকাশের আশা ছেড়েই দিয়েছিলাম। কিন্তু […]


  • চতুর্থ পানিপথের যুদ্ধ

      সুবোধ ঘোষ বাংলাভাষার শ্রেষ্ঠ সাহিত্যিকদের অন্যতম বলে অভিহিত করা হয় তাঁকে। মোট ছোটগল্পের সংখ্যা ১৫৭। প্রথম গল্প ‘অযান্তিক’ প্রকাশিত হয় ১৯৪০ সালে। অর্থের প্রয়োজনে জীবনে বিভিন্ন ধরনের পেশায় নিযুক্ত হতে হয়েছিল তাঁকে। ভবিষ্যতের সাহিত্যজীবনে সেই অভিজ্ঞতা থেকেই লিখেছেন বহু গল্প – উপন্যাস। আত্মকথায় তিনি বলেছেন ‘আমার গল্প লেখার কৃতিত্বটা বিশুদ্ধ আকস্মিকতার একটা ইন্দ্রজাল নয়। […]


যোগাযোগ


email:galpersamay@gmail.com

Your message has been sent. Thank you!

গল্পের সময় পরিবার
সমীর
অগ্নীশ্বর
দেবাশিস
চিন্ময়
পার্থ
মিতালি
জাগরণ
দেবব্রত

© 2016 গল্পের সময়। ডিজাইন করেছেন অগ্নীশ্বর। নামাঙ্কন করেছেন পার্থ