জীবনের গল্প

আজ যিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বেভারলি হিলসে সবচেয়ে দামি বাড়ির মালিক, ছোটবেলায় মেদিনীপুরের অজ পাড়াগাঁয়ে পয়সার অভাবে পায়ে চটি জুটতো না তার। যাঁর গাণিতিক বিশ্লেষনে মহাবিশ্বের গতির পরিমাপ করেন বিজ্ঞানীরা, ছোটবেলায় তাঁকেই অঙ্ক পরীক্ষায় দশ এর বেশী নম্বর দিতে পারেননি স্কুলের মাস্টার। মানুষের জীবনের ঘটনা এইরকমই নানা ছন্দহীনতায় ভরা। নিয়ন্ত্রনহীন ভাবে ছুটে চলা হাউই বাজির চেয়েও আশ্চর্য উত্থানপতন ঘটে জীবনের নানা গতিপথে। নির্মম দারিদ্র্য, প্রতিকুলতা, প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে এগিয়ে চলা কোনও কোনও সাদাকালো জীবন আমাদের শেখায় রঙিন পাখনা মেলার কাহিনী। আবার রঙিন স্বপ্নের ফানুস ফেটে বাস্তবের মাটিতে গোঁওা খাওয়ার উদাহরণও কম নেই। নামী-থেকে অনামী, ধনী থেকে গরীব, শিল্পী থেকে শ্রমিক – খুব কাছ থেকে দেখা নানা মানুষের জীবনের গল্পটাকে আমরা তুলে আনতে চাই। কারন, সব জীবন নয় সমান।


  • মানিদার গল্প

    একটা গল্প বলছি। ১৯৯৫ সাল। আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন ভারতীয় শিল্পী (নন্দলাল বসু ও বিনোদবিহারী মুখোপাধ্যায়ের ছাত্র এবং বিশ্বভারতীর প্রোফেসর এমারিটাস) পদ্মবিভূষণ শ্রী কে জি সুব্রমানিয়ানের শান্তিনিকেতনের বাড়ির দরজায় কড়া নাড়লো এক বছর বাইশের নবীন ছাত্র। এই ছাত্রটির বগলে কাঁচা হাতে আঁকা এক বান্ডিল ছবি। অনেকের বিদ্রুপ ও নিষেধাজ্ঞা অগ্রাহ্য করে শান্তিনিকেতনের ছাত্র না হয়েও সে […]


যোগাযোগ


email:galpersamay@gmail.com

Your message has been sent. Thank you!

গল্পের সময় পরিবার
সমীর
অগ্নীশ্বর
দেবাশিস
চিন্ময়
পার্থ
মিতালি
জাগরণ
দেবব্রত

© 2016 গল্পের সময়। ডিজাইন করেছেন অগ্নীশ্বর। নামাঙ্কন করেছেন পার্থ